Categories
আন্তর্জাতিক বিনোদন

ভারতীয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে গণধর্ষণের হুমকি

প্রিয়াংকা বর্তমানে মার্কিন পপ তারকা নিক জোনাসের স্ত্রী।বিয়ের পর থেকে তিনি থাকছেন লস অ্যাঞ্জেলেসেই।প্রিয়াঙ্কা চোপড়া সেখানে অবস্থানরত অবস্থায় (আনফিনিশ্ড) তার নিজের লিখা বই প্রকাশ করেন।

এছাড়া পিগি জীবনের অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেণ একাধিক টেলিভিশন চ্যানেলের সাক্ষাৎকারে। ব্রাউন টেররিস্ট তার মধ্যে অন্যতম পিগিকে।

তিনি বলেন ২০১২ সালে (ইন মাই সিটি) মুক্তি পাওয়ার সময় বর্ণবিদ্বেষের মুখে পড়েন।ঐ সময় থাকে কটাক্ষ করা হত ব্রাউন টেররিস্ট বলে।এছাড়া প্রশ্ন তোলা হয় তার মত বাদামি রঙের মানুষ যুক্তরাষ্ট্রে কী করছেন।

এই অভিনেত্রী আরো বলেন,যখন সে ভাতরে নিজের জায়গায় চলে যায় তখন সেখানে বোরকা পরুন বলে কটাক্ষ করা হয়।এর পাশাপাশি থাকে গণধর্ষণের হুমকি দেওয়া হয়।

পিগি বলেন তখন প্রিয়াঙ্কা বিশ্বসুন্দরী জয় হয় তখন থাকে নানা ভাবে বর্ণবিদ্বেষের মুখে পড়েন হয় এবং যখন ২০১২ সালে ইন মাই সিটি মুক্তির পাই তখন থাকে বিভিন্ন ভাবে কটাক্ষ শিখার হতে হয়।

তবে ভারতের মধ্যে শুধু প্রিয়াঙ্কা একমাত্র অভিনেত্রী নয় যে বর্ণবিদ্বেষের মুখে পড়েন,এর আগে বর্ণবিদ্বেষের মুখে পড়তে হয় শিল্পাকে,ও। বর্ণবিদ্বেষের জেরে হেনস্তা করা হয় শিল্পাকে (বিগ ব্রাদার) নামক একটি রিয়ালিটি শোয়ে।এই রকম হেনেস্তা সে সহ্য করতে না পারে কেঁটে পেলে এক সময়।

ভারতীয়দের মন ভেঙে যায় সেই অভিনেত্রীর বিডিও সবার সামনে আসার পর।শিল্পা শেঠি এত হেনেস্তা সহ্য করে শেষ পর্যন্ত বিগ ব্রাদার রিয়েলিটি শোয় থেকে বিজয় মুকট নিয়ে ফিরেন।