Categories
বৃহত্তর চট্টগ্রাম শিক্ষা

হাটহাজারী মাদ্রাসা বর্জন করলো সরকারি বোর্ড,নিজেরাই নেবে পরিক্ষা

চট্টগ্রামের দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদ্রাসা সরকার স্বীকৃত বোর্ড বর্জন করলো।মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নেয় শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের পর।এর সাথে শুরু হতে যাচ্ছে দাওরায়ে হাদিসের পরীক্ষা বুধবার (৩১ মার্চ) থেকে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের অধীনে।এই পরিক্ষায় অংশগ্রহণ করবে ২ হাজার মত শিক্ষর্থী।

হাটহাজারী মাদ্রাসার শিক্ষা সচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীর, সচিব ইনামুল হাসান ফারুকী এই বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন ৩০ মার্চ মঙ্গলবার। 

তিনি এই সময় বলেন,হাটহাজারী মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা অংশ নিচ্ছে না সরকার স্বীকৃত বোর্ড (হাইআতুল উলয়া লিল জামিআতিল কওমিয়া বাংলাদেশ)।সিদ্ধান্ত নিয়েছে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের দাবির প্রেক্ষিতে এবং নিজ মাদ্রাসা তৈরিকৃত প্রশ্ন দিয়ে পরিক্ষা নিবে আগামীকাল (৩১ মার্চ) দাওরায়ে হাদিসের।

তিনি আরো বলেন,এই সিন্ধান্ত প্রথমে শুধুমাত্র এই পরীক্ষা বর্জনের জন্য নেওয়া হয়েছিল কিন্তু পরবর্তী সময়ে চূড়ান্তভাবে হাইআতুল উলয়া বর্জনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে শিক্ষার্থীদের দাবিতে।এই বিষয়ে বাকি টা কি হবে তা পরে দেখা যাবে।

 জানা যায় মাদ্রাসা সূত্রে,বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে শিক্ষার্থীরা গত ২৮ মার্চ হাইআতুল উলয়া বর্জনের দাবিতে হাটহাজারী মাদ্রাসা মাঠে।তখন মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে মাদ্রাসার শিক্ষক ড. নুরুল আবসার বলেন,যারা সরকারি ভাবে পরিক্ষা দিতে ইচ্ছুক না এবং যারা ইচ্ছুক তাদের উভয়ে পক্ষ থেকে স্বাক্ষর করে দরখাস্ত দিতে।পরে মাদ্রাসার সকল শিক্ষার্থীদের স্বাক্ষর নিয়ে মাদ্রাসা কতৃপক্ষের কাছে সেটা জমা দেওয়া হয় এবং তার উপর ভিত্তি করে এই সিন্ধান্ত নেওয়া হয়।

এই সম্পর্কে আরো জানা যায়,দেশের বিভিন্ন কওমী মাদ্রাসার ছাত্ররা সরকার স্বীকৃত বোর্ড (আল হাইআতুল উলয়া লিল জামিআতিল কওমিয়া বাংলাদেশ) এর পক্ষে পরীক্ষা না দেওয়ার জন্য ডাক দিয়েছে। 

গত ২৮ মার্চ কওমি মাদরাসার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে দাওরায়ে হাদিসের পরীক্ষা নেওয়ার কথা জানিয়েছেন আগামী ৩১ মার্চ এবং সরকার স্বীকৃত বোর্ড (আল হাইআতুল উলয়া লিল জামিআতিল কওমিয়া বাংলাদেশ) বর্জন কথা বলা হয়।